অপরাধের অনুশোচনায় শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষকেও ছাপিয়ে গেল ষাঁড়। এমনই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হলেন শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্কের বাসিন্দারা।

শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক প্রধান সড়কের এই ঘটনায় তাজ্বব হয়ে যায় গোটা শিলিগুড়ির বাসিন্দারা। ঘটনাটির সুত্রপাত বেশ কয়েকদিন আগে। স্থানীয় এক ব্যবসায়ী, নাম নৃপেন ভাওয়াল! শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক এলাকায় ব্যবসা সেরে বাড়ি ফেরার পথে সম্প্রতি একটি ষাঁড়ের গুঁতোয় গুরুতর আহত হয়ে পরেন তিনি। এরপর যথারীতি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চলে চিকিৎসা। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার পর তিনি গত পরশু রাতে পরোলোক গমন করেন। নৃপেন বাবু ছিলেন শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক এলাকার একজন খুবই পুরোনো ও অভিজ্ঞ ওষুধ ব্যাবসায়ী। শুক্রবার শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক ব্যাবসায়ীদের উদ্যোগে একটি স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।স্মরণসভা দেখেই সেখানে হাজির হয় ঘাতক ষাঁড়টি।

দীর্ঘক্ষণ একদৃষ্টিতে নৃপেন বাবুর ফটো দেখার পর তার দিকে এগিয়ে গিয়ে চোখের জল ফেলে নিজের ভুল বুঝতে পেরে শোক জ্ঞাপন করেন অনুতপ্ত ষাঁড়টি। এই ঘটনায় শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। তাজ্জব বনে যান গোটা এলাকার মানুষ ও ব্যবসায়ী মহল। একটি পশুর এই ধরণের অনুতপ্তের ঘটনা হয়তো আগে শোনেন নি। স্বভাবতই ঘটনায় মানুষকেও হার মানালো ষাঁড়টি।

সবার আগে খবর পেতে , পেইজে লাইক দিন