চলন্ত ট্রেনের মধ্যেই জন্ম নেওয়া শিশু ও তার অভিভাবকদের বস্ত্র ও অর্থ দিয়ে সহায়তা করল জলপাইগুড়ি‌র গ্রিন ভ‍্যালি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা।

রবিবার জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে এসে শিশুটির পরিবারের চারজন সদস্যের জন‍্য শীতের পোশাক তুলে দেওয়া হয়। গত তিনদিন আগে ময়নাগুড়ি ও জলপাইগুড়ি‌ রোড স্টেশনের মধ‍্যবর্তী এলাকায় ট্রেনের মধ্যে‌ই সন্তান প্রসব করেন পরিয়ায়ী শ্রমিক মফিদুল ইসলামের স্ত্রী মসিদা খাতুন। লকডাউন উঠে যাওয়া‌য় কাজের খোঁজে গর্ভবতী স্ত্রী ও দুই বছরের কন‍্যা সন্তান‌কে নিয়ে রাজস্থানের উদ্দেশ্যে যাচ্ছি‌লেন পরিয়ায়ী শ্রমিক মফিদুল ইসলাম। ট্রেনটি ডুয়ার্সের ময়নাগুড়ি স্টেশন পার হতেই প্রচণ্ড প্রসববেদনা ওঠে মফিদুলের স্ত্রী মসিদা খাতুনের। এরপর রেল পুলিশ ও অন‍্যান‍্য যাত্রীদের সহযোগিতা‌য় চলন্ত ট্রেনেই ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি।

পরবর্তীতে ট্রেনটি জলপাইগুড়ি রোড স্টেশনে এলে স্টেশন সুপার এবং আরপিএফের তৎপরতায় ওই মহিলা ও শিশুকে নিয়ে আসা হয় জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে। বর্তমানে হাসপাতালে‌র মাদার অ্যাণ্ড চাইল্ড হাবে ভর্তি রয়েছেন মা ও নবজাতক শিশু। দুজনেই সুস্থ রয়েছে। গ্রিন ভ‍্যালি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য পাপ্পু শীল বলেন, সংবাদ মাধ্যমে আমরা জানতে পারি আর্থিক সঙ্কট সহ অত্যন্ত অসহায় অবস্থায় রয়েছে এই পরিবারটি। এজন্য তাদের অর্থ ও বস্ত্র দিয়ে সহায়তা করা হল।

সবার আগে খবর পেতে , পেইজে লাইক দিন