ভারতবিরোধী কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগে ১৫দিনের মধ্যে দেশ ছাড়ার নির্দেশ পেল বাংলাদেশি ছাত্রী। এই নির্দেশ পাওয়ার পর ভীষন ভয়ে ও দুশ্চিন্তায় ভেঙে পড়েছেন ওই ছাত্রী। ছাত্রীর কাছে এই নির্দেশ এসেছে নির্দিষ্ট ফরের্নাস রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিস থেকে।ছাত্রীর নাম আফসারা আনিকা মিম,বাংলাদেশের কুষ্টিয়ার বাসিন্দা।তিনি স্নাতকস্তরে বিশ্বভারতীর ডিজাইনিংয়ে প্রথম বর্ষের ছাত্রী।বিশ্বভারতীতে সিএএ বিরোধী আন্দোলনের ছবি সোশাল মিডিয়া তে শেয়ার করেন।তারপর ঐ পোস্ট নিয়ে ট্রোল হয়।তারপর ২৫০টি সোশাল মিডিয়া পোস্টে দেশবিরোধী বলে তোপ দাগা হয়। তিনি অ্যাকাউন্ট টা ডিএকটিভ করে দেন।এরপর সম্ভবত কোনো অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।এই চিঠিটি পেয়ে তার মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে। অনেকটা না বুঝেই তিনি এই পোস্ট করেছেন বলে জানিয়েছেন।

জানা গেছে ১৪,১৯,২৪ ফেব্রুয়ারি তাকে দু`দুবার মেল করা হয়।২৪তারিখ এর মধ্যে কইফেয়ৎ চাওয়া হয়। কিন্তু তিনি মেল দেখেননা বলে জানান। বৃহ্পতিবার তার কলকাতায় যাওয়ার কথা।

এব্যাপারে আর এক বাংলাদেশি পড়ুয়া জানান, আমরা কদিন ধরেই শুনছিলাম একথা।এখন তো দেশের মিডিয়া থেকেও এব্যাপারে জানতে চাওয়া হচ্ছে।তবে ভিসা দেওয়ার সময় বলে দেওয়া হয়,কোনো রাজনৈতিক কার্যকলাপের সাথে যুক্ত থাকা যাবে না। বিশ্বভারতীর জনসংযোগ আধিকারিক অনির্বাণ সরকারকে ফোন করে যোগাযোগ করা যায়নি । তবে শোনা যাচ্ছে, ছাত্রীটি বিভাগীয় দফতরে আবেদনের পাশাপাশি আইনি পরামর্শ নেবেন।

সবার আগে খবর পেতে , পেইজে লাইক দিন